ঢাকা | রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১

স্যালুট ডোনাল্ড সাহেব

নট আউট ডেস্ক
প্রকাশিত: ৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ১৮:০৪

ছবি সংগৃহীত ছবি সংগৃহীত

নট আউট ডেস্কঃ গল্পটা রক্তঝড়া মার্চের। গেলবছর মার্চের শুরুতে টাইগারদের পেস বোলিং কোচ হিসেবে দায়িত্বে আসেন অ্যালান ডোনাল্ড। তখন ক্রিকেট পাড়ায় যে প্রশ্নটি ঘুরপাক খেয়েছিল তা ছিল অনেকটা এমন- ‘ওটিস গিবসনের উত্তরসূরি হিসেবে গিবসনকে ছাড়িয়ে যেতে পারবেন তো ডোনাল্ড’। 

ডোনাল্ড যোগ দেওয়ার পর কেটেছে বছর দেড়েক। এখন উত্তর সবার মুখে মুখে রয়েছে। আর উত্তরটা হলো সহজ কথায় ‘হ্যাঁ’। 

বাংলাদেশ পেসাররা এখন ম্যাচ জয়ের কারিগর। স্পিন নির্ভর বাংলাদেশের ফাস্ট বোলারদের নিয়ে এখন বিশ্লেষণ করে বিশ্লেষকরা। আজকের আলোচনায় আমরা পরিসংখ্যান নিয়ে মোটেও কাজ করবো না। করবো শুধুই গল্প। 

মনে পড়ে গেল বছর এশিয়া কাপের কথা। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সেই ম্যাচ। যেখানে নিজের প্রথম দুই ওভারে দুর্দান্ত বল করে বাংলাদেশকে খেলায় রেখেছিল ইবাদত হোসেন। তবে নিজের শেষ দুই ওভারে দলকে হারিয়ে দিয়েছিলেন তিনি। 

ইবাদত তখন ব্যর্থ হয়েছিলেন। তবে মাঝের এই সময়ে বাংলাদেশ দলের অপরিহার্য সদস্যে পরিণত হয়েছে। তাকে এশিয়া কাপে না পাওয়ায় হতাশা প্রকাশ করেছে সকলে। দারুণভাবে বদলে যাওয়ার পেছনে গুরু ডোনাল্ডের অবদান অনেক। 

বাংলাদেশ ফাস্ট বোলাররা এখন বলে-কয়ে ইয়র্কার মারতে পারে। দিতে পারে বাউন্সার। আগ্রাসনে পিছিয়ে কোন অংশে। তাসকিন-শরিফুলরা এখন আতঙ্ক প্রতিপক্ষের জন্য। হাসান মাহমুদ নিজে না হাসলেও তার বোলিংয়ে মুখে হাসি ফুটে দেশের মানুষের। 

মুস্তাফিজ দল থেকে বাদ পড়ছেন। তাকে নিয়ে বিশেষ কাজও করছেন ডোনাল্ড। বাংলাদেশ দল ফিল্ডিং করলে এসি রুম থেকে বের হয়ে সারাক্ষণ মাঠের বাইরে বসে থাকছেন ডোনাল্ড। পেসাররা কোন ভুল করলে কিংবা পরিকল্পনায় সফল না হলে ডেকে নিয়ে দিচ্ছেন পরামর্শ। ফিরে এসে তাসকিনরা তুলছেন উইকেট। এর থেকে সুখের দৃশ্য কিই বা হতে পারে। 

নিজের খেলোয়াড়ী জীবনে পেয়েছিলেন ‘হোয়াইট লাইটনিং বা সাদা বিদ্যুৎ’ উপাধি। বাংলাদেশে ফাস্ট বোলিং বিভাগকে সাজিয়েছে নিজের মত করেই। তাই একবার স্যালুট জানানো যেতেই পারে মানুষটিকে। স্যালুট ডোনাল্ড সাহেব। 

 

-নট আউট/এমআরএস

 



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর

তিন পান্ডবের পাঁচ সেঞ্চুরি, ইমপ্যাক্টে এগিয়ে.....

বিশ্বকাপে ২৯ ম্যাচ খেলা সাকিবের রান ১১৪৬৷ ২৯ ম্যাচে মুশফিকের ৮৭৭ রান৷ এই রান নিয়ে রয়ে...

৬, ৬, ৬, ৬, ৬—‘রিংকু সিং’ হ্যাভ ডান ইট!

শেষ ওভারে এমন খুনে ব্যাটিং এর আগে কেউ দেখেনি বোধহয়।

তাকে সময় দিন, যেন সে হারিয়ে না যায়

‘২০১৬ সালে রিজওয়ানের সাথে ক্রিকেট নিয়ে কাজ করেছিলাম। সেসময়ে যেহেতু তার বয়স কম ছিল, দু...