ঢাকা | মঙ্গলবার, ৫ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০

দ. আফ্রিকার হারে জমে উঠল সেমির লড়াই

নট আউট ডেস্ক
প্রকাশিত: ৪ নভেম্বর ২০২২ ০৪:১২

পাকিস্তান ক্রিকেট। গেটি ইমেজ পাকিস্তান ক্রিকেট। গেটি ইমেজ

নট আউট ডেস্কঃ জিতলেই সেমিফাইনাল নিশ্চিত হয়ে যেত দক্ষিণ আফ্রিকার। অন্যদিকে হারলেই সেমির স্বপ্ন শেষ হয়ে যেত পাকিস্তানের। এমন সমীকরণের ম্যাচে সিডনিতে এদিন মুখোমুখি হয়েছিল এই দু'দল।

টস জিতে এদিন আগে ব্যাট করতে নামা পাকিস্তানকে শুরুতে ছেপে ধরেছিল প্রোটিয়া বোলাররা। তবে শেষ দিকে শাদাব খান ও ইফতেখারের ঝোড়ো অর্ধশতকে ১৮৫ রানের বড় সংগ্রহ গড়ে পাকিস্তান। জবাবে ৯ ওভারে ৬৯ রান তুলতেই ৪ উইকেট হারায় দক্ষিণ আফ্রিকা। এরপর বৃষ্টির কারণে বন্ধ থাকে খেলা। 

বৃষ্টি থামলে ডিএলএস মেথডে প্রোটিয়াদের সামনে নতুন টার্গেট দাঁড়ায় ১৪ ওভারে ১৪২ রান। তবে পাক বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে সেই রান টপকাতে ব্যর্থ হয় দক্ষিণ আফ্রিকা। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ১৪ ওভারে প্রোটিয়ারা থামে ৯ উইকেট হারিয়ে ১০৮ রানে। ফলে বৃষ্টি আইনে ৩৩ রানের জয়ে বাংলাদেশকে নিয়েই সেমির স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখল পাকিস্তান। 

পাকিস্তানের রানের পাহাড় টপকাতে নেমে, ইনিংসের প্রথম ওভারেই এদিন ইনফর্ম কুইন্টন ডি ককের উইকেট হারায় প্রোটিয়ারা। এক ওভার পরেই ফিরেন রাইলি রুশো৷ এই প্রোটিয়াকেই ফেরান পাক পেসার শাহিন শাহ আফ্রিদি। শুরুতেই দুই উইকেট হারিয়ে চাপে পড়া প্রোটিয়ারা ঘুরে দাঁড়ায় অধিনায়ক টেম্বা ভাবুমা ও এইডেন মার্করামের ব্যাটে।

রান খরায় ভুগতে থাকা প্রোটিয়া অধিনায়ক এদিন শুরু থেকেই করেন আক্রমণাত্মক ব্যাটিং। তাতেই বোর্ডে দ্রুত রান জমা হতে থাকে প্রোটিয়াদের। ভয়ংকর হয়ে উঠা ভাবুমাকে ফিরিয়ে প্রোটিয়া শিবিরে ধাক্কাটা দেন শাদাব খান। ফেরান আগে প্রোটিয়া অধিনায়ক খেলেন ১৯ বলে ৩৬ রানের ইনিংস। এক বল পরে আরেক সেট ব্যাটার এইডেন মার্করামকেও ফেরান শাদাব। কার্যত তখনই ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা।

এরপর ৯ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ৬৯ রান তুলতে ম্যাচে হানা দেয় বৃষ্টি। যার কারণে প্রায় এক ঘণ্টার বেশি বন্ধ থাকে খেলা। এরপর বৃষ্টি থামলে পুনরায় খেলা গড়ায় মাঠে। ততক্ষণে অবশ্য কমে আসে ম্যাচের দৈর্ঘ্য। যার কারণে বৃষ্টি আইনে প্রোটিয়াদের সামনে নতুন টার্গেট দাঁড়ায় ১৪ ওভারে ১৪২ রানের। ফলে জিততে শেষ ৫ ওভারে প্রোটিয়াদের প্রয়োজন ছিল ৭৩ রান।

বৃষ্টির পর অবশ্য পাকিস্তান বোলাররা তেঁতে উঠে আরো। তাতেই দলীয় একশ পার করতেই হিমশিম খায় প্রোটিয়ারা। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ১৪ ওভারে৯ উইকেট ১০৮ রানে থামে দক্ষিণ আফ্রিকার ইনিংস। ৩৩ রানের জয়ে বাংলাদেশের সমান ৪ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তিনে উঠে সেমির স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখল বাবর আজমের দল।

পাকিস্তানের পক্ষে তিন উইকেট নিয়েছেন শাহিন শাহ আফ্রিদি। এছাড়া শাদাব খান নেন দুইটি উইকেট। 

এর আগে টস জিতে ব্যাট করে, নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৮৫ রানে সংগ্রহ গড়ে পাকিস্তান। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৫২ রান করেন শাদাব খান। এছাড়া ইফতেখার খেলেন ৫১ রানের ইনিংস। মোহাম্মদ নওয়াজ ও মোহাম্মদ হারিস করেন ২৮ রান করে। দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে চারটি উইকেট নেন অ্যানরিখ নরকিয়া।

 

-নট আউট/টিএ



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর

দ. আফ্রিকার হারে জমে উঠল সেমির লড়াই

শাদাবের অলরাউন্ডার নৈপুণ্যে জিতল পাকিস্তান। এই জয়ে সেমির স্বপ্ন

শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে শেষ বলে হারল পাকিস্তান! 

শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের কাছে হেরে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করেছিল পাকি...

হারিসের ধারাবাহিকতায় ভাঙতে পারে বাবর-রিজওয়ান জুটি

যেভাবে হারিস ব্যাটিং করেছে, তার ভবিষ্যৎ উজ্জ্বল। অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে সে সাউথ আফ্রিকার...