ঢাকা | মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

গিল তো শিখছে কিন্তু পুজারা এটা কী করে করল? চটেছেন শাস্ত্রী

নট আউট ডেস্ক
প্রকাশিত: ৯ জুন ২০২৩ ২০:৪৯

নিজের ভুলে আউট হলেন গিল৷ গেটি ইমেজ নিজের ভুলে আউট হলেন গিল৷ গেটি ইমেজ

নট আউট ডেস্কঃ ওভালে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে দ্বিতীয় দিন শেষে ব্যাকফুটে ভারত। অস্ট্রেলিয়াকে ৪৬৯ রানে আটকে দিয়ে, ব্যাট করতে নেমে ফলো অনেরশঙ্কায় পড়েছে রোহিত শর্মার দল। দলের ব্যাটিং বিপর্যয়ে কাঠগড়ায় দাঁড় করানো হয়েছে শুভমান গিল ও চেতেশ্বর পুজারার আউটকে। এই দুই তারকার আউটকে কোনভাবেই মানতে পারছে না সাবেক ভারতীয়রা।

সাবেক ভারতীয় কোচ রবি শাস্ত্রী রীতিমতো শূলেই চড়িয়েছেন পুজারা ও গিলকে। ওভালে প্রথমে স্কট বোল্যান্ডের বলে আউট হয়েছিলেন শুভমান গিল, এরপর ক্যামরন গ্রিনের বলে ঠিক একইভাবে আউট হয়েছে চেতেশ্বর পুজারা। দু'জনই এক ভুলে আউট হওয়ায়, রীতিমতো প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়েছেন শাস্ত্রী। তার ভাষ্যমতে শুভমান গিল না হয় তরুণ কিন্তু পুজারা তো ১০০টি টেস্ট খেলে ফেলেছিল, তাহলে কী করে সে এমন ভুল করল। 

গতকাল দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষে শুভমান গিলের আউট প্রসঙ্গে রবি শাস্ত্রী বলেন, ‘এটি খারাপভাবে ছিলেন কারণ সামনের পা সবেমাত্র এগিয়ে ছিল। তখন তার বলের দিকে যাওয়া উচিত ছিল। আসলে তিনি এটিকে খেলতে চেয়েছিলেন এবং তারপর সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন যে তিনি এটিকে ছেড়ে দেবেন। সামনের পা তখনও মিডল স্টাম্পে ছিল যখন এটি আসলে অফ স্টাম্পের দিকে যাওয়া উচিত ছিল। সামনের পাটিকে দেখুন। এটি বলের দিকে হওয়া উচিত ছিল। তিনি ভেবেছিলেন এটি অফ স্টাম্পের বাইরে ছিল। এটি তার সিদ্ধান্তের একটি বড় ভুল।’

এরপরে চেতেশ্বর পুজারার আউটের প্রসঙ্গ উঠতেই রীতিমতো চটেছেন শাস্ত্রী। অভিজ্ঞ এই ব্যাটারকে একইভাবে আউট হতে দেখে অবাক হয়েছেন শাস্ত্রী। তিনি বলেছেন, ‘আমরা ইংল্যান্ডে বল ছাড়ার কথা বলি এবং আমরা সবসময় আপনার অফ স্টাম্প কোথায় তা জানার কথা বলি। এটি আপনার অফ স্টাম্প কোথায় তা জানা নেই। দেখুন, শুভমান গিল তার ফুটওয়ার্ক নিয়ে একটু অলস। তিনি শিখবেন; তিনি এখনও শেখার জায়গায় আছেন। তিনি এখনও তরুণ, কিন্তু পুজারার কাছ থেকে এটা দেখে খুবই হতাশা হয়েছি। এটা বলের দিকে এবং বলের লাইন জুড়ে আরেকটু এগিয়ে যাওয়া উচিত ছিল। সেজন্য তারা আপনাকে বলতে থাকে - দেখুন আপনার অফ স্টাম্পটা কোথায় রয়েছে।’

 

-নট আউট/টিএ



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর

বাবরের বিশ্বরেকর্ড, রান পাহাড়ে চড়ল পাকিস্তান

আগা সালমানকে নিয়ে দিনের বাকিটা শেষ করেন বাবর আজম।

হৃদয় জিতলেন সরফরাজ, ‘ড্র’ হলো করাচি টেস্ট

জিততে হলে শেষ ১১ ওভারে পাকিস্তানের প্রয়োজন ছিল ৪৯ রান, হাতে ৪ উইকেট।

‘তিন’ সেঞ্চুরিতে পাল্টা জবাব পাকিস্তানের

১১৪ রানে শফিক ফিরলে ভাঙে ইমামের সঙ্গে ২২৫ রানের জুটি৷