ঢাকা | মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

‘তিন’ সেঞ্চুরিতে পাল্টা জবাব পাকিস্তানের

নট আউট ডেস্ক
প্রকাশিত: ৪ ডিসেম্বর ২০২২ ০৮:৪০

সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন বাবর আজম। গেটি ইমেজ সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন বাবর আজম। গেটি ইমেজ

নট আউট ডেস্কঃ ইংল্যান্ডের সাড়ে ছ'শোর জবাবে ব্যাট হাতে বেশ ভালোই জবাব দিচ্ছে স্বাগতিক পাকিস্তান। তিন খানা সেঞ্চুরিতে বাবর আজমরা তৃতীয় দিন শেষ করেছে ৫০০'র দোরগোড়ায় থেকেই। হাতে ৩ উইকেট থাকা পাকিস্তান এখনও পিছিয়ে ১৫৮ রানে। 

রাওয়ালপিন্ডির ব্যাটিং স্বর্গে পাকিস্তানও যে ভালোই জবাব দিবে সেই আঁচ পাওয়া গিয়েছিল আগেই। বিনা উইকেটে ১৮১ রানে দিন শুরু করা পাকিস্তানের দুই ওপেনার ইমাম-উল-হক ও আব্দুল্লাহ শফিক প্রথম সেশনেই তুলে নেন সেঞ্চুরি। ১৩ চার ও ৩ ছক্কায় ২০৩ বলে ১১৪ রানে শফিক ফিরলে ভাঙে ইমামের সঙ্গে ২২৫ রানের জুটি৷ 

শফিকের বিদায়ের পর অবশ্য বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি ইমাম-উল-হকের ইনিংসও৷ দলীয় ২৪৫ রানের মাথায় জ্যাক লিচের শিকার হয়ে ফিরেন তিনি। ফেরার আগে ১৫টি ও ২টি ছক্কাউ ইমাম করেন ২০৭ বলে ১২১ রান। দুই ওপেনারের বিদায়ের পর দলের হাল ধরেন অধিনায়ক বাবর আজম ও আজহার আলী। তবে দলীয় তিনশ পার করার আগেই ২৭ রানে সাজঘরে ফিরেন আজহার আলী। 

আজহারের বিদায়ের পর রীতিমতো ওয়ানডে মেজাজে রান তুলতে থাকেন অধিনায়ক বাবর আজম। তাকে যোগ্য সঙ্গ দেন সৌধ শাকিল। দু'জন মিলে গড়েন শতাধিক রানের জুটি। এর মাঝেই দুর্দান্ত ব্যাট করে বাবর তুলে নেন শতক। ৯৪ বলে ৩৭ রান করা শাকিলের বিদায়ে ভাঙে এই জুটি। 

এরপর রিজওয়ানকে নিয়ে দলকে কক্ষপথেই রাখেন বাবর আজম। তবে শেষ বিকেলেই এসে খেই হারিয়েছেন তারা দু'জন। ১৯ চারে ও ১ ছক্কায় ১৬৮ বলে ১৩৬ রানে বাবরের বিদায়ে ভাঙে দুজনের পঞ্চাশোর্ধ রানের জোট। পরের ওভারেই ২৯ রান করা রিজওয়ান ফিরেন সাজঘরে। 

দিনের শেষভাগে নাসিম শাহ'র উইকেট না হারালে দিনটা নিজেদের করেই নিতে পারত পাকিস্তান। শেষ পর্যন্ত ৭ উইকেটে ৪৯৯ রান তুলেই তৃতীয় দিনের খেলা শেষ করেছে স্বাগতিকরা। পিছিয়ে এখনও ১৫৮ রানে। ইংল্যান্ডের পক্ষে উইল জ্যাকস নেন ৩টি উইকেট। জ্যাক লিচের শিকার দুই উইকেট। 

 

 

-নট আউট/টিএ

 

 

 



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর

বাবরের বিশ্বরেকর্ড, রান পাহাড়ে চড়ল পাকিস্তান

আগা সালমানকে নিয়ে দিনের বাকিটা শেষ করেন বাবর আজম।

হৃদয় জিতলেন সরফরাজ, ‘ড্র’ হলো করাচি টেস্ট

জিততে হলে শেষ ১১ ওভারে পাকিস্তানের প্রয়োজন ছিল ৪৯ রান, হাতে ৪ উইকেট।

‘তিন’ সেঞ্চুরিতে পাল্টা জবাব পাকিস্তানের

১১৪ রানে শফিক ফিরলে ভাঙে ইমামের সঙ্গে ২২৫ রানের জুটি৷