ঢাকা | বৃহঃস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১

একপেশে ফাইনাল জিতে চ্যাম্পিয়নের মুকুট কলকাতার

নট আউট ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৬ মে ২০২৪ ২২:৫৫

তৃতীয় আইপিএল শিরোপা ঘরে তুলেছে কলকাতা। ছবি: আইপিএল তৃতীয় আইপিএল শিরোপা ঘরে তুলেছে কলকাতা। ছবি: আইপিএল

নট আউট ডেস্কঃ প্রথম কোয়ালিফায়ারে দেখায় সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদকে হেসেখেলে হারিয়েই ফাইনাল নিশ্চিত করেছিল ২০১২ ও ১৪ সালের আইপিএল চ্যাম্পিয়ন কলকাতা নাইট রাইডার্স। মেগা ফাইনালেও হয়েছে যেন তার পুনরাবৃত্তি। অনেকটা একপেশে হওয়া ফাইনালে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদকে স্রেফ উড়িয়ে দিয়ে তৃতীয় আইপিএল শিরোপা ঘরে তুলেছে নাইটরা। 

চিপাকে মাত্র ১১৪ রানের সহজ টার্গেট টপকাতে পারলেই দীর্ঘ দশ বছরের শিরোপা-খরা ঘুচার সুযোগ। সেই অপেক্ষাটা ঘোচাতে অবশ্য বেশিক্ষণ সময় নেয়নি রহমানউল্লাহ গুরবাজ ও ভেঙ্কাটেশ আইয়ার। শুরুতেই ওপেনার সুনীল নারিনের উইকেট হারানোর পর এই দু'জন রীতিমতো তাণ্ডব চালান। গুরবাজ একপ্রান্ত আগলে খানিকটা রয়েসয়ে খেললেও আইয়ার ছিলেন বিধ্বংসী। 

তাতেই ইনিংসের দশ ওভার পার করার আগেই জয়ের দুয়ারে পৌঁছে যায় কলকাতা। দলের জয় নিশ্চিত হওয়ার ঠিক আগে অবশ্য গুরবাজ হারান খেই। ৫ চার ও ২ ছক্কায় ৩৯ রানে ফিরলে ভাঙে ৯১ রানের এই জোট। বাকি কাজটা অধিনায়ক শ্রেয়াস আইয়ারকে নিয়ে সারেন ফিফটি তুলে নেওয়া ভেঙ্কাটেশ আইয়ার। 

শেষ পর্যন্ত একপেশে ফাইনালে ৫৭ বল ও ৮ উইকেট হাতে রেখেই শিরোপার স্বাদ পায় কলকাতা। ৪ চার ও ৩ ছক্কায় ৫২ রান একাই করেন ভেঙ্কাটেশ আইয়ার। ফলে, চার ফাইনাল খেলে তৃতীয় বারের মতো আইপিএলের শিরোপা ঘরে তুললো শাহরুখ খানের কলকাতা নাইট রাইডার্স। 

এর আগে ব্যাট করে কলকাতার বোলারদের তোপে মাত্র ১১৩ রানে গুটিয়ে যায় সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ২৪ রান আসে প্যাট কামিন্সের উইলো থেকে। এছাড়া এইডেন মার্করাম করেন ২০ রান। কলকাতার পক্ষে ৩ উইকেট নেন আন্দ্রে রাসেল। এছাড়া মিচেল স্টার্ক ও হার্শিত রানা নেন ২ উইকেট করে। 

 

-নট আউট/টিএ



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর

লিটনের পর সাকিবের ঠিকানা কলকাতায়

লিটন দাসের পর দ্বিতীয় ধাপে দল পেলেন টাইগার তারকা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। ভিত্তিমূল...

আইপিএলে দল পেলেন লিটন দাস

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) দল পেলেন টাইগার তারকা ব্যাটার লিটন দাস। প্রথম দফায় অ...

আইপিএল নিলামের চূড়ান্ত তালিকায় বাংলাদেশের ‘৪’

দেশী-বিদেশী সর্বমোট ৯৯১ জন ক্রিকেটার করেছিলেন নিবন্ধন। যার মধ্যে ছিল ৬ বাংলাদেশী ক্রি...