ঢাকা | শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৭ আষাঢ় ১৪৩১

তীরে এসে ডুবল বাংলাদেশ

নট আউট ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১ জুন ২০২৪ ০০:২৫

পারল না বাংলাদেশ। গেটি ইমেজ পারল না বাংলাদেশ। গেটি ইমেজ

নট আউট ডেস্কঃ সোমবার (১০ জুন) আগে ব্যাট করে বাংলাদেশকে ১১৪ রানের সহজ লক্ষ্য দেয় দক্ষিণ আফ্রিকা। জবাব দিতে নেমে নির্ধারিত ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১০৯ রান তুলতে পারে টাইগাররা। এতে ৪ রানের হার নিয়ে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ। 

টস জিতে এদিন ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় দক্ষিণ আফ্রিকা। ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই টাইগার পেসারদের তোপের মুখে পড়ে দলটি। তাতেই পাওয়ার প্লের মধ্যে দলটি হারায় ৪ উইকেট। যার তিনটিই নেন পেসার তানজিম সাকিব। পঞ্চম উইকেট জুটিতে প্রোটিয়াদের হাল ধরেন ডেভিড মিলার ও হেনরিখ ক্লাসেন। এই দু'জন মিলে প্রাথমিক বিপর্যয় সামাল দেওয়ার চেষ্টা করেন। 

নিউইয়র্কের স্লো উইকেটে দু'জনই ওয়ানডে মেজাজে করতে থাকেন ব্যাট। মাঝে একবার রিয়াদের বলে ক্যাচে তুলে দিলেও উইকেটের পেছনে থাকা লিটন দাস সেটা লুফতে হয়েছেন ব্যর্থ। মিলার-ক্লাসেন মিলে গড়েন এদিন অবিচ্ছিন্ন পঞ্চাশোর্ধ রানের জোট। ইনিংস সর্বোচ্চ ৪৬ রান করা ক্লাসেনকে ফেরান তাসকিন। 

২৯ রান করা করা মিলারকে ফেরান রিশাদ হোসেন। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত কুড়ি ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১১৩ রান তুলতে পারে দক্ষিণ আফ্রিকা। বাংলাদেশের পক্ষে ১৮ রানে ৩ উইকেট নেন পেসার তানজিম সাকিব। ১৯ রানে তাসকিন আহমেদ নেন ২ উইকেট। 

১১৪ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই বাংলাদেশ হারায় ওপেনার তানজিদ তামিমের উইকেট। এরপর প্রোটিয়া বোলাররা ছেপে ধরে বাংলাদেশকে। তাতেই খেই হারিয়ে উইকেট বিলিয়ে আসেন লিটন-সাকিবরা। দলীয় পঞ্চাশ রানের মাথায় কাপ্তান শান্তর উইকেট হারায় বাংলাদেশ। এরপর দলের হাল ধরেন তাওহীদ হৃদয় ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। 

এই দু'জনের ব্যাটে দেখেশুনেই এগুতে থাকে বাংলাদেশ। দু'জনই প্রোটিয়া বোলারদের দারুণভাবে সামলেছেন এদিন। দারুণ খেলতে থাকা হৃদয়কে ফিরিয়ে প্রোটিয়াদের ম্যাচে ফেরান কাগিসো রাবাদা। ২টি করে চার ও ছক্কায় ৩৭ রান করেন হৃদয়। জয়ের জন্য শেষ তিন ওভারে বাংলাদেশের প্রয়োজন ছিল ২০ রান। পরবর্তীতে সেই সমীকরণ নেমে আসে ১ ওভারে ১১ রানে।

কেশব মহারাজের করা ফাইনাল ওভারে জাকির আলি অনিক, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদরা চেষ্টা করলেও লাভ হয়নি কোন। তাতেই টান টান উত্তেজনার ম্যাচে ৪ রানের জয় পায় দক্ষিণ আফ্রিকা। ফলে, ডি গ্রুপ থেকে তিন ম্যাচের সবকটিতেই জয়ের স্বাদ পেয়েছে প্রোটিয়ারা। দলটির পক্ষে কেশব মহারাজ নেন ৩ উইকেট। অ্যানরিখ নরকিয়া ও কাগিসো রাবাদা নেন ২ উইকেট করে। 



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর

দ. আফ্রিকার হারে জমে উঠল সেমির লড়াই

শাদাবের অলরাউন্ডার নৈপুণ্যে জিতল পাকিস্তান। এই জয়ে সেমির স্বপ্ন

শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে শেষ বলে হারল পাকিস্তান! 

শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের কাছে হেরে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করেছিল পাকি...

হারিসের ধারাবাহিকতায় ভাঙতে পারে বাবর-রিজওয়ান জুটি

যেভাবে হারিস ব্যাটিং করেছে, তার ভবিষ্যৎ উজ্জ্বল। অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে সে সাউথ আফ্রিকার...