ঢাকা | শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৭ আষাঢ় ১৪৩১

বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর প্রথম টি-টোয়েন্টি সিরিজ জয় ইংল্যান্ডের

নট আউট ডেস্ক
প্রকাশিত: ৩১ মে ২০২৪ ১০:৪৩

ছবি সংগৃহীত ছবি সংগৃহীত

নট আউট ডেস্কঃ গত দেড় বছরে প্রথমবার টি-টোয়েন্টি সিরিজ জিতলো ইংল্যান্ড। ২০২২ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল দলটি। চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর প্রথম সিরিজেই বাংলাদেশের কাছে হোয়াইটওয়াশ। এরপর জিততে পারেনি একটা সিরিজও। অবশেষে আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ জয় দলটির। 

চার ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ, দুইটি পরিত্যাক্ত হয়েছিল বৃষ্টি কারণে। এক ম্যাচের জয়ে সিরিজে এগিয়ে থেকে সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচে মাঠে নেমেছিল ইংল্যান্ড। চতুর্থ ও শেষ টি-টোয়েন্টিতে পাকিস্তানকে হারিয়ে সিরিজ জয় খরা কাটালো ইংরেজরা। 

বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে শুরুতে ব্যাট করে পাকিস্তান। ১৯.৫ ওভারে সবক’টি উইকেট হারিয়ে স্কোরবোর্ডে যোগ করে ১৫৭ রান। ১৫৮ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে ২৭ বল আর ৭ উইকেট হাতে রেখে জয় পায় ইংল্যান্ড। 

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা অবশ্য ভালোই ছিল পাকিস্তানের। পাওয়ার প্লেতে ৫৯ রান তুলে তারা। যদিও শেষ বলে হারায় বাবর আজমের উইকেট। পাকিস্তান অধিনায়ক ফেরেন ২২ বলে ৩৬ রান করে। চারবল পর তাকে অনুসরণ করেন রিজওয়ান, ১৬ বলে ২৩ রান করে ফেরেন এই ওপেনার।

এই ধস থামেনি অলআউট হবার আগে। মাঝে কেবল বলার মতো রান করে উসমান খান। ২১ বলে খেলেন ৩৮ রানের ইনিংস। কিন্তু মিডল অর্ডারের বাকিরা ছিলেন ব্যর্থ।ফখর জামান ৯ রান তুললেও শাদাব খান ও আজম খান রানের খাতা না খুলেই ফেরেন সাজঘরে।

রান তাড়া করতে নেমে উদ্বোধনী জুটিতেই জয়ের ঘ্রাণ পেয়ে যায় ইংলিশরা। ঝোড়ো শুরু এনে দেন ফিল সল্ট ও জস বাটলার। ৬ ওভারের দু'জনে তুলে নেন ৭৮ রান। দলীয় ৮২ রান্ব ২৪ বলে ৪৫ রান করে আউট হন সল্ট। বাটলার ফেরেন ২১ বলে ৩৯ রান করে।

এই দুজনকেই ফেরান হারিস রউফ। অবশ্য ইংল্যান্ড ততক্ষণে পৌঁছে যায় শতরানে। এরপর আরও একটা উইকেট নেন হারিস, এবার ফেরান উইল জ্যাকসকে। ১৮ বলে ২০ রানে আউট হন উইল। তবে দলকে জিতিয়ে আনেন বেয়ারেস্টো ও হ্যারি ব্রুক মিলে।


তাদের দু'জনের ২৭ বলে ৪৬ রানের জুটি ১৫.৩ ওভারেই নিশ্চিত করে জয়৷ বেয়ারেস্টো ১৬ বলে ২৮ ও হ্যারি ব্রুক অপরাজিত থাকেন ১৪ বলে ১৭ রানে।

 

-নট আউট/এমআরএস



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর

বাবরের বিশ্বরেকর্ড, রান পাহাড়ে চড়ল পাকিস্তান

আগা সালমানকে নিয়ে দিনের বাকিটা শেষ করেন বাবর আজম।

হৃদয় জিতলেন সরফরাজ, ‘ড্র’ হলো করাচি টেস্ট

জিততে হলে শেষ ১১ ওভারে পাকিস্তানের প্রয়োজন ছিল ৪৯ রান, হাতে ৪ উইকেট।

‘তিন’ সেঞ্চুরিতে পাল্টা জবাব পাকিস্তানের

১১৪ রানে শফিক ফিরলে ভাঙে ইমামের সঙ্গে ২২৫ রানের জুটি৷